Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

Primo N4 Review : ট্রিপল ক্যামেরা, ৬.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে, ব্ল্যাক ও রেইনবো গ্র্যাডিয়েন্ট ডিজাইন

প্রি-সেলে আসছে দারুন ফিচার এবং ডিজাইনে ওয়ালটনের নতুন স্মার্টফোন Primo N4। এই আর্টিকেলে উপস্থাপন করা হয়েছে Primo N4 Review এবং এর প্রি-সেল তথ্য। Primo N4 এ পাবেন ৬.৫ ইঞ্চি সাইজের বিশাল ডিসপ্লে। যারা বড় ডিসপ্লে ব্যবহার করতে ভালোবাসেন, তাদের জন্য এই স্মার্টফোন খুব ভালো পছন্দ হতে পারে। পিএমএমএ ম্যাটেরিয়ালে তৈরি Primo N4 এর রেইনবো ব্ল্যাক কভার আলোতে রংধনুর মতো রং ধারন করবে। স্যামসাং এর A সিরিজের ফোনগুলোও এই পিএমএমএ ম্যাটেরিয়ালেই তৈরি করা হয় । পিএমএমএ প্লাস্টিকের চাইতেও উন্নত, যা গ্র্যাডিয়েন্ট টেক্সচারকে পুরোপুরিভাবে ফুটিয়ে তোলে। স্মার্টফোনটি এখন প্রি-অর্ডার করলেই পাওয়া যাবে ১০০০ টাকা ছাড়। যার ফলে ১১৬৯৯ টাকায় ১০০০ টাকা ছাড়ে স্মার্টফোনটি (৩/৩২) পাওয়া যাবে ১০৬৯৯ টাকায়।

দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে বাজেটের ভেতর দারুন একটি স্মার্টফোন আমরা দেশীয় স্মার্টফোন নির্মাতা ওয়ালটন এর থেকেই আশা করতে পারি। ২০১৯ সালের শেষের দিকে আসা প্রিমো আরএক্স৭ মিনি এখনো বাজারে অনেক চাহিদার একটি স্মার্টফোন। দেশের বিশাল বাজেট গ্রাহকের কথা চিন্তা করে এবার ওয়ালটন বাজারে আনতে যাচ্ছে তাঁদের নতুন স্মার্টফোন প্রিমো এন৪। স্মার্টফোনটির ঘোষণা বহু আগে থেকে দেয়া হলেও বিশ্বের সার্বিক করোনা পরিস্থিতির জন্য এই স্মার্টফোনটির লঞ্চ একটু পিছিয়ে যায়।

প্রিমো আরএক্স৭ মিনির মতই প্রিমো এন৪ স্মার্টফোনও ফিচারের দিক দিয়ে তার দাম হিসেবে যথেষ্ট এগিয়ে, বাজারের অন্য সকল স্মার্টফোনের থেকে। আর সবচেয়ে বড়কথা এই স্মার্টফোন বাজারে আসছে প্রি-সেলে, যেখানে স্মার্টফোনটি ১০০০ টাকা কমে পাওয়া যাবে। স্মার্টফোনটির দাম ১১৬৯৯ টাকা। তবে এই বিশেষ প্রি-সেলে স্মার্টফোনটি পাওয়া যাবে ১০৬৯৯ টাকায়। প্রিমো এন৪ স্মার্টফোনটির ডিজাইন, আগের প্রিমো এস৭ এর সাথে মিল পাবেন। দারুন আকর্ষণীয় দেখতে Primo N4 বাজারে আসছে দুটি কালারে একটি হচ্ছে রেইনবো ব্ল্যাক(কালো) আরেকটি সি গ্রিন(সবুজ)।

একনজরে Primo N4 স্মার্টফোন

  • ১৯ঃ৯ রেসিও সমৃদ্ধ ৬.৫ ইঞ্চি আইপিএস ডিসপ্লে
  • ১৬+৮+২ মেগাপক্সেল রিয়ার ক্যামেরা সেটাপ
  • ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • ২টি সিম+ ১টি এসডি কার্ড ট্রে (3in1)
  • ডুয়াল সিম ৪জি
  • ৪০০০ এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি

স্মার্টফোনটির বক্সে যা যা পাচ্ছেনঃ

ডিসপ্লে

যারা বাজেটের ভেতরে একটু বড় ডিসপ্লে এর স্মার্টফোন পছন্দ করেন তারা Primo N4 পছন্দ করতে পারেন নিঃসন্দেহে। কেননা Primo N4 স্মার্টফোনটিতে পাবেন ৬.৫ ইঞ্চি সাইজের ফুলএইচডি আইপিএস ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লের এস্পেক্ট রেসিও ১৯ঃ৯ । আর বরাবরের এখনকার অন্যসব স্মার্টফোনের মত এর আপনার প্যানেলে পাবেন একটি নচ। যাকে ভি-নচ কিংবা ইউ-নচ বলা যায়।

যারা বাজেটের ভেতরে একটু বড় ডিসপ্লে এর স্মার্টফোন পছন্দ করেন তারা Primo N4 পছন্দ করতে পারেন নিঃসন্দেহে। কেননা Primo N4 স্মার্টফোনটিতে পাবেন ৬.৫ ইঞ্চি সাইজের ফুলএইচডি আইপিএস ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লের এস্পেক্ট রেসিও ১৯ঃ৯ । আর বরাবরের এখনকার অন্যসব স্মার্টফোনের মত এর আপনার প্যানেলে পাবেন একটি নচ। যাকে ভি-নচ কিংবা ইউ-নচ বলা যায়।

সফটওয়্যার

Primo N4 স্মার্টফোনটিতে পাচ্ছেন এম্বিয়েন্ট ডিসপ্লে প্রযুক্তি। আপনি পাওয়ার বাটন প্রেস করে Primo N4 কে জাগালেই এই প্যানেলে খুবই সুসজ্জিত ভাবে দেখতে পারবেন আপনার গুরুত্বপূর্ণ নোটিফিকেশন।

Primo N4 স্মার্টফোনটিতে পাচ্ছেন এম্বিয়েন্ট ডিসপ্লে প্রযুক্তি। আপনি পাওয়ার বাটন প্রেস করে Primo N4 কে জাগালেই এই প্যানেলে খুবই সুসজ্জিত ভাবে দেখতে পারবেন আপনার গুরুত্বপূর্ণ নোটিফিকেশন।

স্মার্টফোনটিতে পাবেন এন্ড্রয়েড ৯ পাই এডিশন। হালকা কিছু কাস্টমাইজেশন ব্যাতিত সম্পূর্ণ ষ্টক এন্ড্রয়েড এর স্বাদ পাবেন এই স্মার্টফোনটিতে।

স্মার্টফোনটিতে পাবেন এন্ড্রয়েড ৯ পাই এডিশন। হালকা কিছু কাস্টমাইজেশন ব্যাতিত সম্পূর্ণ ষ্টক এন্ড্রয়েড এর স্বাদ পাবেন এই স্মার্টফোনটিতে।

হার্ডওয়্যার

স্মার্টফোনটির দামের হিসেবে হার্ডওয়্যারে এর দিক দিয়েও নিরাশ করেনি ওয়ালটন। স্মার্টফোনটিতে পাওয়া যাবে মিডিয়াটেক এর হেলিও ২৩ প্রসেসর। প্রসেসরটি ২ গিগাহার্জ ক্ষমতা সম্পন্ন একটি অক্টাকোর প্রসেসর। যার সাথে গ্রাফিক্স ইন্টার‍্যাকশন হিসেবে পাওয়া যাবে ‘মালি জি৭১’ গ্রাফিক্স প্রোসেসিং ইউনিট। Primo N4 LPDDR4x ৪জিবি এবং ৩ জিবি র‍্যাম ভেরিয়েন্টে আসলেও প্রি-সেলে ৩ জিবি র‍্যাম ভার্সনটি পাওয়া যাবে। স্মার্টফোনটির ৩ জিবি র‍্যাম ভার্সনের সাথে পাওয়া যাবে ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। আর ৪ জিবি র‍্যাম ভেরিয়েন্টের সাথে পাওয়া যাবে ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।

স্মার্টফোনটির দামের হিসেবে হার্ডওয়্যারে এর দিক দিয়েও নিরাশ করেনি ওয়ালটন। স্মার্টফোনটিতে পাওয়া যাবে মিডিয়াটেক এর হেলিও সিরিজের প্রসেসর। প্রসেসরটি ২ গিগাহার্জ ক্ষমতা সম্পন্ন একটি অক্টাকোর প্রসেসর। যার সাথে গ্রাফিক্স ইন্টার‍্যাকশন হিসেবে পাওয়া যাবে ‘মালি জি৭১’ গ্রাফিক্স প্রোসেসিং ইউনিট। Primo N4 LPDDR4x ৪জিবি এবং ৩ জিবি র‍্যাম ভেরিয়েন্টে আসলেও প্রি-সেলে ৩ জিবি র‍্যাম ভার্সনটি পাওয়া যাবে। স্মার্টফোনটির ৩ জিবি র‍্যাম ভার্সনের সাথে পাওয়া যাবে ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। আর ৪ জিবি র‍্যাম ভেরিয়েন্টের সাথে পাওয়া যাবে ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।

আরএক্স৭ মিনি স্মার্টফোনের পর এই Primo N4 কে বলা যায় আরেকটি গেমিং কিলার। হয়ত ওয়ালটন বাজার এই স্মার্টফোনকে আরএক্স৭ মিনি এর সাক্সেসর হিসেবেই নিয়ে আসছে। স্মার্টফোনটির সর্বোচ্চ ভেরিয়েন্টে আপনি ৬৪ জিবি পর্যন্ত ইন্টারনাল স্টোরেজ সুবিধা তো পাচ্ছেনই, তবে এক্সট্রা এসডি কার্ড স্লটে আরো অতিরিক্ত ৬৪ জিবি পর্যন্ত মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন।

এর এনটুটু বেঞ্চমার্ক স্কোর ৯৮৮৮৭। এবং গিকবেঞ্চ অ্যাপে সিঙ্গেল কোরে স্কোর ১৫১ এবং মাল্টি কোরে স্কোর ৮৯০।

আরএক্স৭ মিনি স্মার্টফোনের পর এই Primo N4 কে বলা যায় আরেকটি গেমিং কিলার। হয়ত ওয়ালটন বাজার এই স্মার্টফোনকে আরএক্স৭ মিনি এর সাক্সেসর হিসেবেই নিয়ে আসছে। স্মার্টফোনটির সর্বোচ্চ ভেরিয়েন্টে আপনি ৬৪ জিবি পর্যন্ত ইন্টারনাল স্টোরেজ সুবিধা তো পাচ্ছেনই, তবে এক্সট্রা এসডি কার্ড স্লটে আরো অতিরিক্ত ৬৪ জিবি পর্যন্ত মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন।

ক্যামেরা

স্মার্টফোনটির অন্যতম আকর্ষণীয় ব্যাপার হচ্ছে এর ট্রিপল ক্যামেরা মডিউল। Primo N4 এর রিয়ার প্যানেলে আপনি পাবেন ১৬+ ৮+ ২ মেগাপিক্সেল সেন্সর নিয়ে একটি ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ। স্মার্টফোনটিতে থাকছে বিল্টইন আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ফিচার। যার দরুন আপনি স্মার্টফোনটিতে অফলাইন মুডেও নানান এআই ফিল্টার ব্যবহার করতে পারবেন।

স্মার্টফোনটির অন্যতম আকর্ষণীয় ব্যাপার হচ্ছে এর ট্রিপল ক্যামেরা মডিউল। Primo N4 এর রিয়ার প্যানেলে আপনি পাবেন ১৬+ ৮+ ২ মেগাপিক্সেল সেন্সর নিয়ে একটি ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ। স্মার্টফোনটিতে থাকছে বিল্টইন আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ফিচার। যার দরুন আপনি স্মার্টফোনটিতে অফলাইন মুডেও নানান এআই ফিল্টার ব্যবহার করতে পারবেন।

ক্যামেরার লেন্সের ফোকাল লেন্থ এর অপর এর ছবির মান অনেকটা নির্ভর করে থাকে। এই ফোকাল লেন্থকে প্রকাশ করা হয় এপারচার দ্বারা। এপারচার নাম্বার যত ছোটো হবে ক্যামেরার ওপেনিং তত বড় হবে। Primo N4 স্মার্টফোনটির ট্রিপল ক্যামেরা মডিউলে আপনি পাচ্ছেন এপারচার এফ ১.৮। যা আপনাকে অবজেক্টকে তুলনামূলক ভালো ফোকাস পয়েন্টে রেখে খুব দারুন কিছু ছবি তুলতে সহায়তা করবে।

Camera UI

ফোকাল লেন্থ কম হওয়ার কারনে কম আলোতে ছবি এবং ভিডিও গ্রাফির ক্ষেত্রে Primo N4 দিয়ে খুব ভালো ফলাফল পাবেন আশা করাই যায়।

ক্যামেরার লেন্সের ফোকাল লেন্থ এর অপর এর ছবির মান অনেকটা নির্ভর করে থাকে। এই ফোকাল লেন্থকে প্রকাশ করা হয় এপারচার দ্বারা। এপারচার নাম্বার যত ছোটো হবে ক্যামেরার ওপেনিং তত বড় হবে। Primo N4 স্মার্টফোনটির ট্রিপল ক্যামেরা মডিউলে আপনি পাচ্ছেন এপারচার এফ ১.৮। যা আপনাকে অবজেক্টকে তুলনামূলক ভালো ফোকাস পয়েন্টে রেখে খুব দারুন কিছু ছবি তুলতে সহায়তা করবে। আর ফোকাল লেন্থ কম হওয়ার কারনে কম আলোতে ছবি এবং ভিডিও গ্রাফির ক্ষেত্রে Primo N4 দিয়ে খুব ভালো ফলাফল পাবেন আশা করাই যায়।

Primo N4 এর ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপের ভেতর আপনি পাবেন একটি ৮ মেগাপিক্সেল এর ওয়াইড আঙ্গেল সেন্সর। যার মাধ্যমে আপনি আপনার সামনের দৃশ্যপটকে প্রায় ১২০ ডিগ্রি আঙ্গেলে আপনার ক্যামেরা ফ্রেমের ভেতর বন্দী করে ফেলতে পারবেন। সুতরাং ক্যামেরায় যারা ওয়াইড আঙ্গেল এর চিন্তা করছিলেন তাঁদের জন্য Primo N4 একটি ভালো পছন্দ হতে পারে।

Primo N4 এর ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপের ভেতর আপনি পাবেন একটি ৮ মেগাপিক্সেল এর ওয়াইড আঙ্গেল সেন্সর। যার মাধ্যমে আপনি আপনার সামনের দৃশ্যপটকে প্রায় ১২০ ডিগ্রি আঙ্গেলে আপনার ক্যামেরা ফ্রেমের ভেতর বন্দী করে ফেলতে পারবেন। সুতরাং ক্যামেরায় যারা ওয়াইড আঙ্গেল এর চিন্তা করছিলেন তাঁদের জন্য Primo N4 একটি ভালো পছন্দ হতে পারে।

Primo N4 এর ১৬ মেগাপক্সেল মেইন সেন্সরে ব্যবহার করা হয়েছে 5P লেন্স, এবং ৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড আঙ্গেল সেন্সরে ব্যবহার করা হয়েছে 6P লেন্স। আর এর ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সরকে ব্যবহার করা হয়েছে ডেপথ সেন্সিং এর জন্য।

ভিডিও কলিং এবং সেলফি যাদের নিত্যদিনের কাজ, তাঁদের জন্য এই বাজেট Primo N4 স্মার্টফোন কমনয়! স্মার্টফোনের ফ্রন্ট প্যানেলে আপনি পাবেন ১৩ মেগাপিক্সেল এর এপারচার এফ ২.২ সমৃদ্ধ একটি ফ্রন্ট শুটার। ফ্রন্ট প্যানেলের ক্যামেরায় থাকা বিশেষ পোর্টরেইট মোড ফিচার, সাহায্য করবে আপনাকে দারুন দারুন সব সেলফি তুলতে।

ভিডিও কলিং এবং সেলফি যাদের নিত্যদিনের কাজ, তাঁদের জন্য এই বাজেট Primo N4 স্মার্টফোন কমনয়! স্মার্টফোনের ফ্রন্ট প্যানেলে আপনি পাবেন ১৩ মেগাপিক্সেল এর এপারচার এফ ২.২ সমৃদ্ধ একটি ফ্রন্ট শুটার। ফ্রন্ট প্যানেলের ক্যামেরায় থাকা বিশেষ পোর্টরেইট মোড ফিচার, সাহায্য করবে আপনাকে দারুন দারুন সব সেলফি তুলতে।

Primo N4 এর ফ্রন্ট প্যানেলে পাবেন পিকচার ইন পিকচার এর মত দারুন কিছু ফিল্টার মোড।

Primo N4 এর ফ্রন্ট প্যানেলে পাবেন পিকচার ইন পিকচার এর মত দারুন কিছু ফিল্টার মোড।

প্রাইমারি সিকিউরিটি ফিচার হিসেবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সিকিউরিটির পাশাপাশি এই স্মার্টফোনটিতে আপনি পাবেন ফেস আনলক সুবিধা। আর এই ফোনে থাকা ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ফেস আনলক নিরাপত্তাকে দিয়েছে আরো পরিপূর্ণতা।

প্রাইমারি সিকিউরিটি ফিচার হিসেবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সিকিউরিটির পাশাপাশি এই স্মার্টফোনটিতে আপনি পাবেন ফেস আনলক সুবিধা। আর এই ফোনে থাকা ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ফেস আনলক নিরাপত্তাকে দিয়েছে আরো পরিপূর্ণতা।

স্পেশাল ফিচারস

স্মার্টফোনটিতে থিম স্টোর, আই কমফোর্ট, ডিজিটাল অয়েলবিয়িং, আম্বিয়েন্ট ডিসপ্লে এর মত স্পেশাল ফিচারসগুলো পাবেন।

ওয়ারেন্টি তথ্য

স্মার্টফোনটির সাথে পাবেন ৩০ দিনের রিপ্লেসমেন্ট ওয়ারেন্টি। পাশাপাশি ১০১ দিনের ভেতর কোন সমস্যা দেখা দিলে পাবেন স্পেশাল সাপোর্ট বা প্রায়োরিটি সাপোর্ট। তাছাড়া ফোনের সাথে পাবেন রেগুলার ১ বছরের ওয়ারেন্টি এবং ব্যাটারি, চার্জার এবং  ইউএসবি কেবলে পাবেন ৬ মাসের ওয়ারেন্টি।

পরিশেষে

আরেকটি বিষয় হয়ত ভালো করে উল্লেখ্য করা হয়নি, স্মার্টফোনটিতে পাওয়া যাবে ৪০০০ এমএএইচ ক্ষমতা সম্পন্ন লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি, যা সারাদিন আপনাকে একটি ভালই ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে সক্ষম হবে। যারা এই বাজেট এর আসেপাশে একটি স্মার্টফোন কিনতে চাচ্ছেন , যাতে কিনা গেমিং থেকে শুরু করে হালকা পাতলা সকল কাজ করবেন, তারা অবশ্যই নতুন এই Primo N4 স্মার্টফোনটি দেখতে পারেন। আর Primo N4 Review নিয়ে যেকোনো মতামত নিচে অবশ্যই জানাবেন।