Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

গুগলের অ্যানড্রয়েড ১০ গো: যা যা থাকছে

অ্যান্ড্রয়েড গো হচ্ছে গুগলের তৈরি করা এমন এক এডিশন যা গুগলের পিক্সেল ডিভাইস ছাড়াও কম বাজেটের স্মার্টফোনগুলোতে ব্যবহার করা যাবে এবং এটি সয়ংক্রিয়ভাবে আপনার ধারণকৃত ছবি ও ভিডিওতে ক্যাপশন যোগ করে নেবে

টেক জায়ান্ট গুগল তাদের “অ্যানড্রয়েড কিউ” প্রজেক্টের নাম পরিবর্তন করে গত সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে “গুগল অ্যান্ড্রয়েড ১০ গো” এডিশন প্রকাশ করেছে। অ্যান্ড্রয়েড গো হচ্ছে গুগলের তৈরি করা এমন এক এডিশন যা গুগলের পিক্সেল ডিভাইস ছাড়াও কম বাজেটের স্মার্টফোনগুলোতে ব্যবহার করা যাবে। চলুন তবে দেখে নেয়া যাক এতে কী কী ফিচার রয়েছে-

লাইভ ক্যাপশন:

গুগল অ্যান্ড্রয়েড ১০ গো এডিশন এতটাই স্মার্ট যে, আপনি যখনই আপনার পছন্দের ফোনে কোনো মিডিয়া ফাইল চালু করবেন সঙ্গে সঙ্গে এটি ক্যাপশন যোগ করে নিতে পারবে। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো এরজন্য কোনো ইন্টানের সংযোগ বা ওয়াইফাইয়ের দরকার পড়বে না।

আর আপনি যদি সেলফি তোলা ও ভিডিও ধারণ করতে ভালোবাসেন তবে লাইভ ক্যাপশন আপনার জন্য এক আশীর্বাদ। এটা সয়ংক্রিয়ভাবে আপনার ধারণকৃত ছবি ও ভিডিওতে ক্যাপশন যোগ করে নেবে। এজন্য আপনাতে যা করতে হবে তা হলো আপনাকে শুধু ভলিউম বাটনে ক্লিক করতে হবে।

স্মার্ট রিপ্লাই:

অ্যান্ড্রয়েড ১০ গো এর ‘স্মার্ট রিপ্লাই‘ আপনাকে কেউ বার্তা পাঠানোর সঙ্গে সঙ্গে সম্ভাব্য উত্তর দেখাবে। যার মাধ্যমে আপনি কম সময়ের মধ্যে অনেক বেশি মানুষের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন। এটা শুধু সম্ভাব্য উত্তরই দেখাবে না সেই সাথে আপনার পরবর্তী কি কাজ হবে তাও নির্দেশ করবে। উদাহরণস্বরূপ, যদি কেউ আপনাকে কোনো ঠিকানার কথা জিজ্ঞেস করে তবে সে আপনাকে গুগল ম্যাপে নিয়ে যাবে।

পরিষ্কার শব্দ:

আপনি এমন একটি স্থানে রয়েছেন যা কোলাহলপূর্ণ, এমন সময় গুরুত্বপূর্ণ ফোন কল এলে আপনি কি করবেন? কোলাহলপূর্ণ স্থানে আপনার কথোপকথনকে বাধাগ্রস্থ করতে পারে। এমন পরিস্থিতি এড়াতে অ্যান্ড্রয়েড ১০ গো ওপারেটিং সিস্টেমে ‘সাউন্ড অ্যাপ্লিফায়ার’ ফিচার আনা হয়েছে। এমন ফিচারের কারণে স্বয়ংক্রিয়ভাবে চারপাশের অন্যান্য শব্দ বা প্রতিধ্বনি ফিল্টার করতে পারে। ফোনের সাউন্ড সিস্টেমকে বুস্টিংয়ের মাধ্যমে অডিও মান বৃদ্ধি করবে।

এছাড়া, ফিচারটি শব্দকে নিজের মতো করে প্রক্রিয়া করে নিয়ে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করবে, যাতে বিভিন্ন লেকচার, গান বা কথোপকথন শুনতে আপনার কাছে আরামদায়ক মনে হয়।

জেশ্চার নির্দেশনা:

গুগলের সর্বশেষ ভার্সন অ্যান্ড্রয়েড ১০ গো-তে জেশ্চার নেভিগেশন বা নির্দেশানা সিস্টেম আগের চেয়ে অনেক উন্নত করা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড পাইয়ের ওয়ান-বাটন প্রক্রিয়াটির বিপরীতে, জেশ্চার নিয়ন্ত্রণ সিস্টেমটি স্ক্রিনে খুব বেশি জায়গা না নিয়ে অ্যান্ড্রয়েড ১০ -এর একটি পাতলা বারের নীচে উপস্থিত হবে। এর স্বজ্ঞাত নেভিগেশন সিস্টেমটি ব্যবহারকারীকে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশনে অ্যাক্সেস করতে বা হোম স্ক্রিনটিকে দ্রুত উপায়ে ফিরে যাওয়ার জন্য সহজেই সামনে বা পিছনে সোয়াইপ করতে দেয়।

ডার্ক থিম:

অতিমাত্রায় স্মার্টফোন ব্যবহারে শুধু চোখেরই ক্ষতি হয় না, ফোনের ব্যাটারির-শক্তিকেও ক্ষীণ করে তোলে। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে গুগল অ্যান্ড্রয়েডের সর্বশেষ এই ভার্সনে ডার্ক থিম ফিচার আনা হয়েছে। এটি চালু করে নিলে ফোনের ইউজার ইন্টারফেসে কালো আবহ পাওয়া যাবে। তা ছাড়া এটি চোখের জন্য আরামদায়ক এবং ব্যাটারির স্থায়িত্ব বাড়াবে।

গোপনীয়তা:

গুগল অপরেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ১০ গো-তে ব্যক্তিগত গোপনীয়তা নিয়ন্ত্রণ অংশটিও আগের চেয়ে আরও উন্নত করা হয়েছে এবং সবকিছু এমন একটি স্থানে রয়েছে যাতে করে এখন আপনি কয়েক মুহূ্র্তের মধ্যে সহজেই আপনার গোপনীয়তা সেটিংস পরিবর্তন করতে পারেন।

অবস্থান নিয়ন্ত্রণ:

আপনি কোন কোন অ্যাপসের সাথে নিজের লোকেশন বা অবস্থান শেয়ার করতে চান তার অপশন আপনাকে দেবে গুগল অ্যান্ড্রোয়েড ১০। আপনি কখন বা কতক্ষণ আপনার স্মার্টফোনের লোকেশন বা অবস্থান শেয়ারের অপশনটি ‘চালু কিংবা বন্ধ’ করতে চান তাও সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন এখানে।

নিরাপত্তা আপডেট:

আপনার স্মার্টফোনের অ্যাপগুলো যখন নিয়মিত আপডেট হয় না, তখন এটি ম্যালওয়্যার, ভাইরাস বা এমনকি হ্যাকারদের দ্বারা আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে থাকে। কিন্তু গুগল অ্যান্ড্রয়েড ১০ গো-তে এটা নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই। কারণ এর ‘নিরাপত্তা আপডেট’ ফিচারটি সর্বশেষতম নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলোকে এক মুহূর্তের মধ্যে আপডেটগুলো নিয়ে আসবে।

ফোকাস মোড:

আপনার স্মার্টফোনটি কখনো এমন অনেকগুলো বিভ্রান্তিকর, অব্যবহৃত বা কম প্রয়োজনীয় অ্যাপ্লিকেশন দিয়ে ওভারলোড হয়ে যায়, আবার আপনি সেই মুহূর্তে সেগুলো ডিলিটও করতে চান না, তখন কী করবেন? গুগুল অ্যান্ড্রয়েড ১০ গো-তে সেই সুযোগ রাখা হয়েছে। এখানে ইচ্ছা করলেই ফোকাস মোড অপশনের মাধ্যমে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ্লিকেশনগুলো বন্ধ রাখতে পারবেন।

ফ্যামিলি লিংক:

আপনারা কি এমন সচেতন বাবা-মা, যারা নিজেদের সন্তানদের কর্মকাণ্ড ও উপস্থিতি সার্বক্ষণিক নজরদারি করতে চান? তাহলে গুগল অ্যান্ড্রয়েডের সর্বশেস ভার্সনটি আপনার জন্য তৈরি করা হয়েছে। এখানে ফ্যামিলি লিংক নামে একটি ফিচার রয়েছে। এই ফিচারটি ব্যবহার করে আপনি আপনার সন্তনদের বিভিন্ন অ্যাপস বা অ্যাপলিকেশন ব্যবহার সীমাবদ্ধ করে দিতে পারেন।

সার্চ ইঞ্জিনের ডোমেনটি সবার শীর্ষে থাকায় গুগল প্রতিনিয়ত প্রযুক্তির অন্যান্য উচ্চতায় উঠে আসছে। অ্যান্ড্রয়েড ১০ চালু হওয়ার সাথে সাথে গুগল অপারেটিং সিস্টেমস (ওএস) বিকাশের ক্ষেত্রে নিজেকে অদম্য শক্তি হিসাবে প্রমাণ করেছে। গুগলের এই অপারেটিং সিস্টেমে বেশ কয়েকটি বাস্তবসম্মত ও ব্যবহারকারীবান্ধব ফিচার আনা হয়েছে, যা তার অন্য প্রতিযোগীদের থেকে অনন্য করে রেখেছে।