Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

মটোরোলার যত লাইফস্টাইল পণ্য

বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তি ব্র্যান্ড মটোরোলা দেশে স্মার্টফোনের পাশাপাশি অন্যান্য স্মার্ট প্রযুক্তিপণ্যও নিয়ে আসছে। এরমধ্যে অন্যতম হলো লাইফ স্টাইল পণ্য। হেডফোন, ব্লুটুথ হেডফোন, ব্লুটুথ স্পিকার, ইয়ার ভার্ভবাডস, পোর্টেবল স্পিকারসহ বিভিন্ন ধরনের গ্যাজেট দেশের বাজারে অবমুক্ত করেছে বাংলাদেশে মটোরোলার ন্যাশনাল পার্টনার সেলেক্সট্রা লিমিটেড। বাজারে ছাড়ার অল্প সময়ের মধ্যে জনপ্রিয়তাও পেয়েছে বলে জানিয়েছে সেলেক্সট্রা। বিশেষ করে করোনাকালে অনলাইন ক্লাস, মিটিংয়ে হেডফোন, ইয়ারফোনের চাহিদা ছিল আকাশচুম্বি। সেই জনপ্রিয়তা এখনও ধরে রেখেছে ব্র্যান্ডটি।

 সাতটি মডেলের তারবিহীন পোর্টেবল স্পিকার:

দেশের বাজারে নতুন তিন সিরিজের মোট সাতটি মডেলের তারবিহীন পোর্টেবল স্পিকার এনেছে মটোরোলা। নতুন সিরিজগুলো হলো- সাব, বুস্ট এবং ম্যাক্স।  স্পিকারের মডেলগুলো হলো- সনিক সাব২৪০, সনিক সাব৩৪০, সনিক সাব৫৩০, সনিক সাব৬৩০, সনিক বুস্ট২২০, সনিক ম্যাক্স৮২০ এবং সনিক ম্যাক্স ৮১০ টুইন। বুস্ট সিরিজের স্পিকারের প্রধান বৈশিষ্ট্য হলো- এ সিরিজের স্পিকারগুলোতে ব্লুটুথ ভি৫.০ এবং ওয়াটারপ্রুফ আইপিএক্স৫ ব্যবহার করা হয়েছে।

দেশে মটোরোলার অন্যান্য লাইফস্টাইল পণ্যের মধ্যে রয়েছে ইয়ারবার্ডস (মটোরোলা ভার্ভবাডস১০০, ভার্ভবাডস৩০০ এবং ভার্ভবাডস৪০০), ব্লুটুথ হেডফোন (ভার্ভলুপ১০৫ এবং ভার্ভর‌্যাপ১০৫) এবং শিশুদের জন্য ব্লুটুথ হেডফোন (স্কোয়াডস২০০ এবং স্কোয়াডস৩০০)। এসব লাইফস্টাইল পণ্য দেশের তরুণ ও শিশুদের মাঝে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

95a36a94-6e77-4b38-9e5c-0d48c18ec028 অত্যধুনিক প্রযুক্তির ইয়ার ভার্ভবাডস;

সম্প্রতি দেশের বাজারে বেশ কয়েক ধরনের অডিও লাইফ স্টাইল পণ্য নিয়ে এসেছে মটোরোলা। জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির তিন মডেলের ইয়ার ভার্ভবাডস। ইয়ারবাডসের মডেলগুলো হলো- ভার্ভবাডস১০০, ভার্ভবাডস৩০০ এবং ভার্ভবাডস৪০০। এসব ভার্ভবাডসে ব্লুটুথের সর্বশেষ ভার্সন ৫ ব্যবহার করা হয়েছে, যা ১০ মিটার রেঞ্জের মধ্যে দেবে ক্রিস্টাল ক্লিয়ার সাউন্ড।  ডিভাইসগুলোতে থাকছে স্মার্ট ভয়েস অ্যাসিসট্যান্ট, যা হাবল কানেক্ট’র মাধ্যমে অ্যামাজন, অ্যালেক্সা, গুগল অ্যাসিসট্যান্ট ও সিরি ব্যবহার করে মিউজিক, ম্যাপস ইত্যাদি কন্ট্রোল করা যাবে।

1f25d272-d606-43df-82f9-68d2d792485c এক্সক্লুসিভ হেডফোন:

ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের জন্য স্কোয়াডস২০০ ও স্কোয়াডস৩০০ মডেলের দুটি হেডফোন বাংলাদেশের বাজারে এনেছে মটোরোলা।

স্কোয়াডস২০০ তারযুক্ত হেডফোনটিতে রয়েছে ৮৫ ডেসিবেল পর্যন্ত নিরাপদ শব্দসীমানা এবং অ্যালার্জি ফ্রি কুশন, যা শিশুদের জন্য স্বাস্থ্যকর ও আরামদায়ক। স্কোয়াডস২০০ তারযুক্ত হেডফোনটি শকপ্রুফ ও মজবুত, যা ব্যবহারের সময় অতিরিক্ত সবাধানতা অবলম্বনের প্রয়োজন হয় না।

স্কোয়াডস৩০০ ওয়্যারলেস হেডফোনটিতে রয়েছে ব্লুটুথ ভার্সন ৫, যা ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত চার্জিং ব্যাকআপ দিতে পারে। আর শেয়ারিং’র জন্য রয়েছে অডিও স্প্লিটার ও চার্জিং ক্যাবল। হেডফোনগুলোতে রয়েছে সর্বশেষ প্রযুক্তির হাবল কানেকটেড, আমাজন এলেক্সা, সিরি কানেকটেড এবং গুগল ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট সুবিধা।

a0620db9-1c2e-4c0d-b37b-606511702b65 ইন ইয়ার কোর্ডেড হেডসেট:

মটোরোলার এই সিরিজের হেডসেটে চারটি মডেল রয়েছে।  এগুলো হলো পেস১২৫, পেস১১৫, পেস১২৫ ও পেস ১৪৫। এগুলোতে ক্লিয়ার সাউন্ড, স্মার্ট ভয়েস অ্যাসিসট্যান্স রয়েছে। আছে অ্যালেক্সা সাপোর্ট। ছয় মাসের ওয়ারেন্টিসহ পণ্যগুলো বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। এই হেডফোনগুলো কালো, ব্লু রেড, সাদা, ব্লু  পিংক রঙে পাওয়া যাবে।

a355365d-96c1-4f5c-8ac8-e44bd7918093
এয়ারবার্ড স্পোর্টস:

মটোরোলার এই হেডসেটে ডায়নামিক জীবনযাত্রার জন্য অপরিহার্য। এটিতে নয়েজ ক্যান্সেলেশন প্রযুক্তি, ক্লিয়ার সাউন্ড, হ্যান্ডসফ্রি কলের জন্য মাইক্রোফোন, স্মার্ট ভয়েস অ্যাসিসট্যান্স-সাপোর্ট রয়েছে।

2bd33e38-5fca-4d73-a07d-ab9bc9ae9571 ইয়ারবাডস থ্রি:

মটোরোলার এই হেডসেটটিতে হ্যান্ডস ফ্রি কলের জন্য মাইক্রোফোন, স্মার্ট ভয়েস অ্যাসিসট্যান্স রয়েছে।

4b815530-8c4a-483e-87a4-54668e02fb4c হেডসেট পালস১২০

মটোরোলার এই হেডসেটগুলো খুবই অত্যাধুনিক।  এটি খুব হালকা।  এর ওজন মাত্র ১৬৮ গ্রাম। রয়েছে এইচডি সাউন্ড, মাইক্রোফোন টু হ্যান্ডস ফ্রি কল, স্মার্ট ভয়েস অ্যাসিসট্যান্স। কালো রঙে ৬ মাসের ওয়ারেন্টিসহ পাওয়া যাচ্ছে।

5a4face6-6c29-4ecf-8cab-b32d93ec6ca5 ওয়্যারলেস হেডফোন ভার্ভলুপ১০৫

মটোরোলার এই পণ্যটি ৮ঘণ্টা অনায়াসে চলবে। এটির ডিজাইন চমৎকার, আইপিএক্স-ফাইভ ঘাম নিরোধী, রয়েছে আধুনিক ভয়েস অ্যাসিসট্যান্স। নেকব্যান্ডওয়াল কালো রঙের এটি ৬ মাসের ওয়ারেন্টিসহ পাওয়া যাচ্ছে।

bde83241-70e3-41e0-816b-d6c0b6498745 ওয়ারলেস হেডফোন ভার্ভর‌্যাপ১০৫

এই হেডফোনটিও চমৎকার ডিজাইনসহ এটিও ঘাম ও পানিরোধী। রয়েছে আধুনিক ভয়েস অ্যাসিসট্যান্স। প্লে টাইম ৮ ঘণ্টা পর্যন্ত।

fe4539b6-e60f-41f5-8a3b-bb26204da7e0 স্কেপ২২০:

কালো রঙের হেডসেটটির সর্বোচ্চ প্লে টাইম ২৩ ঘণ্টা, হ্যান্ডস ফ্রি কলিং ও স্মার্ট ভয়েস সুবিধা রয়েছে।

39c52cc8-b821-44c7-8492-50334564a731 ওয়্যারলেস পোর্টেবল স্পিকার সনিক সাব২৪০:

১১ ঘণ্টা একাধারে চলবে এই তারবিহীন বহনযোগ্য স্পিকার সনিক সাব২৪০। আছে ৭ ওয়াটের শক্তিশালি স্পিকার।  এই সিরিজের সব স্পিকার পানিরোধী। সনিক সাব৫৩০, সনিক সাব৩৪০- সবগুলোতে স্মার্ট ভয়েস অ্যাসিসট্যান্স সাপোর্ট রয়েছে।

e8842a91-afea-40c9-ab7b-dc01308767a5 সনিক ম্যাক্স ৮১০ তারবিহীন স্পিকার 

এই সিরিজের দুটো ওয়্যারলেস পোর্টেবল স্পিকার রয়েছে। একটি সনিক ম্যাক্স৮১০ অন্যটি সনিক ম্যাক্স৮২০। দুটোতেই ব্লুটুথ ভি৫.০ রয়েছে। ৪০ ওয়াটের পাওয়ারফুল স্পিকার, এগুলোতে মাইক্রো জ্যাক, গিটার জ্যাক, ইউএসবি ক্যাবল আছে, আছে এফএম রেডিও শোনার সুবিধা। সঙ্গে তারসহ মাইকও রয়েছে।  পানিরোধী এসব স্পিকার ১১ ঘণ্টা একাধারে চলতে সক্ষম।