Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ওয়ালটন PRIMO F9 হ্যান্ডস অন রিভিউ

বাজেট স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে ওয়ালটনের এফ সিরিজ বরাবরই বেশ জনপ্রিয়। বরাবরের মত তারই ধারাবাহিকতায় ওয়ালটন এফ সিরিজের আরেকটি বাজেট ফোন লঞ্চ করেছে। আর ডিভাইসটির নাম হল প্রিমো এফ৯। প্রিমো এফ৯ এর বাজার মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৫১৯৯ টাকা।

এক নজরে প্রিমো এফ ৯ঃ 

  • ৪জি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট
  • অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ পাই (গো এডিটেশন)
  • ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াড-কোর প্রসেসর
  • ১ জিবি ডিডিআর থ্রী র‍্যাম ১৬ জিবি রম
  • ৫.৪৫” ১৮ঃ৯ রেশিও এফডাব্লিউভিজিএ ফুল ভিউ ডিসপ্লে
  • বিএসআই ৫ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা সাথে এলইডি ফ্ল্যাশ
  • বিএসআই ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা সাথে সফট এলইডি ফ্ল্যাশ
  • ২৫০০  মিলি অ্যাম্পেয়ার ব্যাটারি

স্মার্টফোনটির এর সাথে পাওয়া যাবেঃ

  • প্রিমো এফ৯ ডিভাইসটি,
  • একটি চার্জার এডাপ্টার,
  • একটি (২.০) ইউএসবি কেবল,
  • একটি ইয়ারফোন,
  • ডিসপ্লেতে যুক্ত প্রটেকশন গ্লাস,
  • একটি ওয়ারেন্টি কার্ড,
  • একটি সেফটি ইন্সট্রাকশন এবং ব্যাক কভার।

৪জি কানেকটিভিটি

যারা বাজেট এর ভেতর ইউটিউব, ফেসবুকিং ইত্যাদির জন্য একটি ৪জি মোবাইল চাচ্ছেন; তাদের জন্য এই প্রিমো এফ৯ পছন্দের তালিকায় এগিয়ে থাকতে পারে। কেননা ৫১৯৯ টাকার এই ফোনে আপনি পেয়ে যাচ্ছেন ৪জি কানেকটিভিটি।

অপারেটিং সিস্টেম 

ফোনটিতে লেটেস্ট এন্ড্রয়েড ৯ পাই অপারেটিং সিস্টেম এর গো এডিশন ব্যবহার করা হয়েছে। গো এডিশন এর ফলে হার্ডওয়্যার হিসেবে ফোনটির সফটওয়্যার এক্সপেরিয়েন্স হবে খুবই লাইট এবং তুলনামূলক ল্যাগ ফ্রি।

বডি ও ডিসপ্লে

দাম অনেক কম হলেও এর ডিজাইন  কিন্তু কম দামের ফোনের মত নয়। ফোনটির রিয়ার প্যানেলে আপনি পেয়ে যাচ্ছেন গ্র্যডিএন্ট কালার প্ল্যাস্টিক বিল্ড। যা বাজেট সেগমেন্ট এর ফোন হলেও ফিল দেবে প্রিমিয়াম ফোনের মত। ফোনটি নিলাভ সবুজ, ঘন নীল এবং লাল তিনটি কালার ভেরিয়েন্টে পাওয়া যাবে।

ডিসপ্লে হিসেবে থাকছে ৫.৪৫” ১৮ঃ৯ রেশিও এফডাব্লিউভিজিএ ফুল ভিউ ডিসপ্লে। ডিসপ্লের কালার যথেষ্ট উজ্জ্বল ও শার্প ছিলো।

ক্যামেরা

ফোনটির সামনে পিছে থাকছে বিএসআই সেন্সর যুক্ত ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এখানে ফ্রন্ট ক্যামেরার সাথেও একটি সফট এলইডি ফ্ল্যাশ পাওয়া যাবে। আর রিয়ার ক্যামেরার সাথে তো একটি ভালমানের এলইডি ফ্ল্যাশ যুক্ত থাকছেই।

ক্যামেরা ইউ আই 

হার্ডওয়্যার

হার্ডওয়্যারের দিক দিয়ে এটি এই দামের আসেপাশে ওয়ালটন এর অন্যসব ফোনগুলোর মতোই । এতে থাকছে ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর। আরও থাকছে পাওয়ারভিআর জিই ৮১০০ জিপিইউ।

ফোনটিতে থাকছে ১ জিবি র‍্যাম আর পাশাপাশি ইন্টারনাল হিসেবে থাকছে ১৬ জিবি স্টোরেজ। এর পাশাপাশি এতে ৬৪ জিবি পর্যন্ত এসডি কার্ড সাপোর্ট করবে।

বেঞ্চ মার্ক স্কোর 

ব্যাটারি

এই স্পেসিফিকেশন হিসেবে এর ব্যাটারি চলনসই বলা যায়। ফুল চার্জে সারাদিনই চালানো যাবে স্মার্টফোনটি। আর এন্ড্রয়েড এর গো ভার্সন ব্যাটারি সাশ্রয়ীও বটে।

 

জেসচার

ফোনটিতে স্পেশাল ফিচার হিসেবে এতে জেসচার সুবিধা পাওয়া যাবে। যার ফোন  ফোনের স্ক্রিন অফ থাকা অবস্থায়ও স্ক্রিনে হাতের ইশারায় কিছু কাজ করা যাবে অনায়াসেই। যেমন স্ক্রিন লক খোলা, গান পরিবর্তন করা ইত্যাদি।

ওয়ালটন এর অন্যসব ফোনের মতই এতে পাওয়া যাবে রিপ্লেসমেন্ট এবং ওয়ারেন্টি সুবিধা।

৫১৯৯ টাকায় সব দিক বিবেচনা করে এই প্রিমো এফ৯ কে খারাপ বলা যাবে না।  স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে ৪-৫ হাজার টাকার বাজেট একদম নিচের বাজেট বলা যায়। আর এই বাজেটে কোন স্মার্টফোনটি আসলে ভালো হবে আমরা  এনিয়ে প্রায়সময় সিন্ধান্তহীনতায় ভুগি। তো এসব রিভিউ স্মার্টফোনটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এবং আপনাকে কোন স্মার্টফোনটি কেনা উচিত সেই সিদ্ধান্ত নিতে সহযোগিতা করবে আশা করি।