Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ওয়ালটন প্রিমো জি এইট আই ফুল হ্যান্ডস অন রিভিউ ( Primo G8i )

ওয়ালটন সর্বদাই চেষ্টা করে আসছে মোটামোটি প্রাইজে সবার ক্রয় ক্ষমাতার মধ্যে তাদের আপকামিং আপডেট ডিভাইসগুলো রাখতে। তারই ধারাবাহিকতায় মাত্র ৬,৩৯৯ টাকায় ২জিবি র‍্যাম সমৃদ্ধ (Primo G8i) প্রিমো জি এইট আই বাজারে লঞ্চ করেছে ওয়ালটন, এতে রয়েছে লেটেস্ট অ্যান্ডোয়েড ৮.১ অপারেটিং সিস্টেম, ১৬ জিবি রম, ফুল ভিউ ১৮ঃ৯ FWVGA+ আইপিএস ডিসপ্লে। Primo G8 এর মত ফিঙার প্রিন্ট না থাকলে ও এর অসাধারণ ডিজাইন আর পারফর্মেন্সের দিক থেকে অনেক এগিয়ে। মজার বেপার হচ্ছে Primo G8 এর থেকে Primo G8i এর প্রাইজ কিছুটা কম।

একনজরে প্রিমো জি এইট আই

  • অ্যান্ডোয়েড ৮.১
  • ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াড-কোর প্রসেসর
  • ২ জিবি ডিডিআর থ্রী র‍্যাম; ১৬ জিবি রম ( ৬৪ জিবি পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে )
  • ৫.৩৪ ইঞ্চি আইপিএস ফুল ভিউ ১৮ঃ৯ FWVGA+ প্রযুক্তির ডিসপ্লে ও ২.৫ ডি কার্ভ গ্লাস
  • বিএসআই ৮ মেগাপিক্সেল অটোফোকাস রিয়ার ক্যামেরা সাথে এলইডি ফ্ল্যাশ
  • বিএসআই ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা
  • ২,২৫০ এমএএইচ লিথিয়াম অয়ন ব্যাটারি

বক্সে যা যা থাকছে

  • হ্যান্ডসেটটি
  • অ্যাডাপ্টার
  • ইউএসবি ক্যাবল
  • এয়ারফোন
  • প্রটেকশন পেপার
  • ওয়ারেন্টি কার্ড ও সেফটি ইন্সট্রাকশন
  • ব্যক কভার

ইউজার ইন্টারফেস

প্রিমো জিএইটআইতে কাস্টমাইজ থিম ব্যাবহার করা হয়েছে। এর ইউজার ইন্টারফেস একদন সিম্পল ও ফেন্ডলি, এতে লেটেস্ট অ্যান্ড্রয়েড ৮.১ ব্যাবহার করা হয়েছে। এটি খুব স্মুথ ও ফার্স্ট কাজ করে।

ডিসপ্লে এবং বডিঃ

স্মার্টফোনটির বিল্ড কোয়ালিটি যথেষ্ট ভাল ছিল। যদিও স্মার্টফোনটি প্লাস্টিক বিল্ড তবুও এর ফিনিশিং এবং আউটলুক যে কাউকে সহজেই আকৃষ্ট করবে বলে আমি মনে করি। ডিভাইসটিতে ৫.৩৪ ইঞ্চি ১৮ঃ৯ রেশিও ফুল ভিউ FWVGA+ প্রযুক্তির ক্যাপাসিটিভ টার্চ স্ক্রিন আইপিএস ডিসপ্লে ব্যাবহার করা হয়েছে। যার চারপাশে ২.৫ ডি কার্ভ। এর ডিসপ্লের কালার যথেষ্ট ব্রাইট ও শার্প।

ডিভাইসটির ডিজাইনে ক্যামেরা মডিউল কিছুটা উপরে হওয়ায় স্ক্রাচ পরার সম্ভাবনা আছে এ ছারাও এর ব্যাক সাইডটি স্লিপই তাই ফোনের সাথে থাকা ব্যক কভারটি ইউজ করার রিকমেন্টেশন থাকলো। প্রিমো জিএইটআই বাজারে লাইট ব্লু এবং ব্লাক কালারে পাওয়া যাবে তার মধ্যে কালো রঙটি সবচেয়ে আকর্ষণীয়। ব্যাটারিসহ এই ডিভাইসের ওজন মাত্র ১৬০ গ্রাম। ডিভাইসটির পুরুত্ব ৯.৫ মিলিমিটার। ডিভাইসটির উচ্চতা ১৪৪.৫ মিলিমিটার এবং প্রস্থ ৭০.৬ মিলিমিটার। পুরো ডিভাইসটি ব্যাকআপ দিতে থাকছে ২,২৫০ এমএএইচ লিথিয়াম অয়ন ব্যাটারি।

ক্যামেরা

ডিভাইসটির ফ্রন্টে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল এবং রিয়ার প্যানেলে রয়েছে একটি ৮ মেগাপিক্সেল BSI সেন্সর যুক্ত অটোফোকাস ক্যামেরা । আর এই ক্যামেরাটিতে ডিজিটাল জুম, সেলফি টাইমার, ফিচারস রয়েছে। শুটিং মোড হিসেবে রয়েছে ফেস বিউটি, এইচডিআর, প্যানোরামা।

হার্ডওয়্যার

প্রিমো জিএইটআই ডিভাইসটিতে প্রসেসর হিসেবে থাকছে ১.৩ গিগাহার্জ কোয়াডকোরপ্রসেসর। ২ জিবি ডিডিআর থ্রী র‍্যাম ও ১৬ জিবি রম মাইক্রো এসডি কার্ড মাধ্যমে ৬৪ জিবি পর্যন্ত বৃদ্ধি করা যাবে।

জিপিউ হিসেবে থাকছে মালি টি৮২০। এর মাল্টি স্ক্রীনে অনেক গুলো আপস এক সঙ্গে ইউজ করা যাবে। এনটুটু বেঞ্চমার্কে এর স্কোর এসেছে ৩২৭৯৮ এবং গ্রীকবেঞ্চমার্ক অ্যাপলিকেশনে এর সিঙ্গেল কোর স্কোর এসেছে ৪৩৪ এবং মাল্টি কোর স্কোর এসেছে ১১৬৩।

কানেকটিভিটি ফিচারের মধ্যে রয়েছে ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ভার্সন ৪.২, ইউএসবি ভি-২, ওটিজি, ওটিএ আপডেটের সুবিধা।

ওয়ালটন এর থেকে কম বাজেটে ৪জি দিয়ে থাকলে ও এই ডিভাইজে ৪জি থাকছে না। সামনে আশাকরি ওয়ালটন তাদের সকল স্মার্টফোনে ৪জি পাবো। যেহেতু প্রিমো জিএইটআই একটি বাজেট স্মার্ট ফোনে তাই সব দিক থেকে বিবেচনা করলে ভুল হবে। মোটামুটি গেমিং কিংবা হেবি ইউজাদের জন্য এটি একটি আদর্শ ডিভাইস। পারফরমেন্স এর দিক দিয়ে যারা কমপ্রোমাইজ করতে চাচ্ছেন না তারা  প্রিমো জিএইটআই দেখতে পারেন।