Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

ওয়ালটন প্রিমো এইচ ৮ ফুল হ্যান্ডস অন রিভিউ ( PRIMO H8 )

২৬শে মার্চ স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ই-প্লাজাতে ফ্ল্যাশসেলে প্রিমো এইচ ৮ রিলিজ করা হয়। এর আকর্ষণীয় গ্র্যাডিয়েন্ট কালার ডিজাইন আর দারুন স্পেসিফিকেশনের কারনে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করে। ফ্ল্যাশসেল শেষ হওয়ার আগেই নির্দিষ্ট স্টক আউট হয়ে গিয়েছিল। ৩ জিবি র‍্যাম সমৃদ্ধ এই স্মার্টফোনে রিয়ার প্যানেলে রয়েছে সনি সেন্সর যুক্ত ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, আর সামনে অমনি-ভিসন ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। রয়েছে ৫.৪৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি ১৮ঃ৯ রেসিও আইপিএস ডিসপ্লে। পুরো ডিভাইসটিকে ব্যাকআপ দিবে ৩২০০ এমএএইচ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি ব্যাটারি। ফোনটির মূল্য ৭৯৯৯ টাকা মাত্র।

এক নজরে প্রিমো এইচ৮ঃ 

  • ফোরজি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট
  • ৫.৪৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি ১৮ঃ৯ রেসিও আইপিএস ডিসপ্লে
  • ২.৫ ডি কার্ভড গ্লাস
  • এন্ড্রয়েড ৮.১ অরিও
  • ১.২৮ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর
  • ৩ জিবি র‍্যাম; ১৬ জিবি রম
  • ৮ মেগাপিক্সেল অটোফোকাস রিয়ার সনি ক্যামেরা সাথে এলিডি ফ্ল্যাশ
  • ৮ মেগাপিক্সেল অমনিভিশন সেলফি ক্যামেরা
  • ফেস আলনক
  • ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর
  • ৩২০০ এমএএইচ ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি

বক্সের মধ্যে যা যা থাকছে

  • প্রিমো ইএম ২ হ্যান্ডসেটটি
  • অ্যাডাপটার
  • ইউএসবি কেবল
  • ইয়ারফোন
  • ট্রান্সপারেন্ট ব্যাক কভার
  • ওয়ারেন্টি কার্ড
  • সেফটি ইন্সট্রাকশন

ইউজার ইন্টারফেস

প্রিমো এইচ৮ এ অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে রয়েছেএন্ড্রয়েড ৮.১ অরিও। এর  ইউজার ইন্টারফেস একদম সিম্পল ও ফ্রেন্ডলি। এতে স্টক থিম ব্যাবহার করা হয়েছে।

ডিজাইন

প্রিমো এইচ৮ এর বডি প্লাস্টিক বিল্ড আর গ্র্যাডিয়েন্ট লুক দেয়া হয়েছে। ডিভাইস তিনটি গ্র্যাডিয়েন্ট কালার মোডে বাজারে পাওয়া যাবে, আর এগুলো হলঃ রোজ গোল্ড,টুইলাইট ব্লু এবং মিডনাইট ব্লু। স্মার্টফোনটি ওজনে হালকা ও গ্রিপি হওয়ায় এক হাতে সহজেই অপারেট করা যা‍য়। ডিভাইসটির আপার প্যানেলে কিছু থাকছে না। লোয়ার প্যানেলে  রয়েছে ৩.৫ এমএম অডিও পোর্ট মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট । বাম সাইডে রয়েছে ভলিউম এবং পাওয়ার বাটন। ব্যাটারি সহ এর ওজন ১৮০ গ্রাম এবং এর প্রস্থ ৭১ মিমি. উচ্চতা ১৪৮.৭ মিমি. ও পুরুত্ত ৮.৪ মিমি.

ডিসপ্লে

প্রিমো এইচ৮ ডিভাইসটিতে রয়েছে ৫.৪৫ ইঞ্চি  ১৮:৯ রেশিও ফুল ভিউ এইচ ডি আইপিএস ডিসপ্লে। ডিসপ্লেটির চারদিকে ২.৫ডি কার্ভ। এর স্ক্রীন ডেনসিটি ২৯৫ ডিপিআই। কালার যথেষ্ট ব্রাইট ছিলো গেমিং,মুভি ওয়াচিং এর ক্ষেত্রে আশাকরি কোনো সমস্যা হবে না। ডিভাইসটি ১০ ফিংগার মাল্টিটাচ সাপোর্টেড।

হার্ডওয়্যার

প্রিমো এইচ৮ এর স্পেসিফিকেশন যথেষ্ট চোখে পরার মত। প্রসেসর হিসেবে এতে থাকছে ১.২৮ গিগাহার্জ কোয়াড-কোর প্রসেসর যার কোর সংখ্যা ৪টি। ৩ জিবি ডিডিআর থ্রী র‍্যাম ও রম ১৬ জিবি। ডিভাইসটির টোটাল ২৯০৬ এম্বি র‍্যাম এর ভেতর সাধারন আপস ইন্সটলেশন এর পর ১৩৮১ এম্বি এর মত তথা ৪৭% র‍্যাম ফাকা থাকে। ব্যাবহার যোগ্য ইন্টারনাল স্টোরেজ পাওয়া যায় ৯.৫৬ জিবি। ল্যাগিং ছারাই একাধিক আপস ইউজ করা যাবে।

জিপিউ হিসেবে থাকছে  ইমেজিনেশন টেকনোলজিস  power VR Rogue GE8100 জিপিউ। গেমিং এর ক্ষেত্রে  ভালই পারফরমেঞ্চে পাওয়া যাবে আশা করা যায়।

বেঞ্চমার্ক

ওটিজি সুবিধাঃ

প্রিমো এইচ৮ ডিভাইসটিতে ওটিজি সাপোর্টেড। ইউএসবি পেনড্রাইভ, মাউস কীবোর্ড সহজেই কানেক্ট করা যাবে।

ক্যামেরা

ডিভাইসটির রিয়ার প্যানেলে রয়েছে অটোফোকাস সনি সেন্সর যুক্ত ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা আর সামনে পাওয়া যাবে অমনি-ভিসন ৮ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। রিয়ার ক্যামেরার সাথে সিঙ্গেল এলইডি ফ্ল্যাস রয়েছে। বেশ কিছু ক্যামেরা সেটিংস আর শুটিং মোড হিসেবে রয়েছে ; নরমাল মোড, প্রফেশনাল মোড, ফেস বিউটি, স্ক্রীন মোড, অডিও পিকচার ও কিউআর কোড স্ক্যানার। ডিভাইসটির এই ক্যামেরা ৭২০ পিক্সেলে এইচডি ভিডিও রেকর্ড করতে পারে এ ছারাও টাইম ল্যাপস ফিচার অ্যাড করা হয়েছে।

ক্যামেরা ইউ আই

মাল্টিমিডিয়া

ফোনটিতে ফুল এইচডি ভিডিও প্লেব্যাক করা যাবে এ ছাড়া  থাকছে এফ এম রেডিও ও সাউন্ড রেকর্ডার ।

ব্যাটারি

পুরো ডিভাইসটি ব্যাকআপ দিতে রয়েছে ৩২০০ এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। এক চার্জে একদিন ভালোভাবেই চলে যাবে আশাকরছি। ডিভাইসটিতে অপটিমাইজ সফটওয়্যার ব্যাবহার করা হয়েছে তাই ব্যাটারি ড্রেইনের কোন ঝামেলা নেই।

সিকিউরিটি

ফোনের নিরাপত্তা জন্য ফেস আনলক ফিচারটি অ্যাড করা হয়েছে। এর ফেস আনলক ফিচার ০.৩ সেকেন্ডে ব্যবহারকারীর মুখাবয়ব রিড করতে পারে।

এ ছারাও রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের রেসপন্স যথেষ্ট ফাস্ট ছিলো। ০.১ সেকেন্ড অথ্যৎ চোখের পলকেই এটি কাজ করে।

স্পেসিফিকেশন আর ডিজাইন দিক থেকে এই বাজেটে প্রিমো এইচ৮ আমাদের কাছে সেরা স্মার্টফোন মনে হয়েছে, কেননা ৮ হাজারের মধ্যে বর্তমান সময়ে চোখে পরার মতো একটা ডিভাইস ছিলো।