Download WordPress Themes, Happy Birthday Wishes

Walton Primo “NF4” Hands On Review

ইতি মধ্যে ওয়ালটন বাজারে এনএফ সিরেজের নতুন স্মার্ট ফোন প্রিমো এনএফ৪ বাজারে লিরিজ করেছে। বড় ডিসপ্লে সমৃদ্ধ আকর্ষণীয় গ্র্যাডিয়েন্ট ডিজাইন এর মুল আকর্ষণ। ডিভাইসটি দেখে অনেকেরই প্রিমো এইচ ৮ মনে হতে পারে কারন এর ডিজাইন এর সাথে অনেকাংশ মিল রয়েছে। তবে বডি ডায়মেনশন ডিসপ্লে এবং হার্ডওয়্যার এ সামান্য পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। পুর্বের এনএফ ৩ এর থেকে নতুন এনএফ৪ পুরোপুরি আলাদা। ওয়ালটন প্রিমো এনএফ৪ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৬,৪৯৯ টাকা। প্রিমো এনএফ ৪ এর বিস্তারিত জানা যাক।

এক নজরে প্রিমো এনএফফোরঃ

  • ফোরজি নেটওয়ার্ক সাপোর্ট
  • ৫.৯৯ ইঞ্চি ফুল এইচডি ১৮ঃ৯ রেসিও আইপিএস ডিসপ্লে
  • ২.৫ ডি কার্ভড গ্লাস
  • এন্ড্রয়েড ৮.১ অরিও গো এডিটেশন
  • ১.২৮ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর
  • ১ জিবি ডিডিআর থ্রী র‍্যাম; ৮ জিবি রম
  • ৮ মেগাপিক্সেল অটোফোকাস রিয়ার সনি ক্যামেরা সাথে এলিডি ফ্ল্যাশ
  • ৮ মেগাপিক্সেল অমনিভিশন সেলফি ক্যামেরা
  • ফেস আলনক
  • ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর
  • ৩২০০ এমএএইচ ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি

বক্সের মধ্যে যা যা থাকছে

  • প্রিমো এনএফ৪ হ্যান্ডসেটটি
  • অ্যাডাপটার
  • ইউএসবি ক্যাবল
  • ইয়ারফোন
  • ট্রান্সপারেন্ট ব্যাক কভার
  • ওয়ারেন্টি কার্ড
  • সেফটি ইন্সট্রাকশন

ইউজার ইন্টারফেস

প্রিমো এনএফ৪ ডিভাইসটিতে স্টক থিম ব্যাবহার করা হয়েছে। এর ইউজার ইন্টারফেস একদন সিম্পল ও ফেন্ডলি।

অপারেটিং সিস্টেমঃ

প্রিমো এনএফ৪ এ অপারেটিং সিস্টেমে থাকছে এন্ড্রয়েড এর লাইটেস্ট ভার্সন ‘এন্ড্রয়েড ৮.১ অরিও এর গো’ এডিশন। মূলত হার্ডওয়্যার বিবেচনা করে এই অপটিমাইজড ভার্সনটি দেয়া হয়েছে। যেখানে গুগল এর  এন্ড্রয়েড গো ভার্সন অ্যাপ গুলো পাওয়া যাবে।

৪জি কানেক্টিভিটিঃ

ডিভাইসটি ৪জি কানেক্টিভিটি সাপোর্টেড। দ্রুতগতির ইন্টারনেটের অভিজ্ঞতা শুরু হোক প্রিমো এনএফ৪ এর সাথে।

ডিজাইন

প্রিমো এনএফ৪ ডিভাইসটি রুবি ব্ল্যাক, টুলাইট ব্লু এবং টুলাইট পারপেল তিনটি কালারে বাজারে পাওয়া যাবে।  ডিজাইন এর দিক দিয়ে দামের তুলনায় এটি ভালই প্রিমিয়াম।

ডিসপ্লে

ডিভাইসটির মূল আকর্ষণ হচ্ছে এর ডিসপ্লে, এই ডিভাইসে  একটি ৫.৯৯ ইঞ্চি এর বড় আইপিএস প্যানেল ডিসপ্লে পাওয়া যাবে, যা আসলে আপনার জন্য এই ফোনটি কেনার মুখ্য কারন হতে পারে।

বাজেট এর ভেতর যদি আপনি ভালো মানের একটি বড় ডিসপ্লে এর ফ্যাবলেট  টাইপের ডিভাইস খোঁজেন, তবে এটি পছন্দ করতে পারেন।  ডিসপ্লেটি সাইড দিয়ে ২.৫ ডি কার্ভড।

ক্যামেরা

ডিভাইসটির রিয়ার ক্যামেরায় পাওয়া যাবে  সনির ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর আর সামনে সেলফি ক্যামেরা মডিউল হিসেবে থাকছে অমনি-ভিসন ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর। রিয়ার ক্যামেরার সাথে সিঙ্গেল এলইডি ফ্ল্যাস রয়েছে। বেশ কিছু ক্যামেরা সেটিংস আর শুটিং মোড হিসেবে রয়েছে ; নরমাল মোড, প্রফেশনাল মোড, ফেস বিউটি, স্ক্রীন মোড, অডিও পিকচার ও কিউআর কোড স্ক্যানার। ডিভাইসটির এই ক্যামেরা ৭২০ পিক্সেলে এইচডি ভিডিও রেকর্ড করতে পারে এ ছারাও টাইম ল্যাপস ফিচার অ্যাড করা হয়েছে।

হার্ডওয়্যার

ডিভাইসটিতে থাকছে ১.২৮ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর, যার সাথে পুরো সিস্টেমকে ব্যাকআপ দিবে একটি ১ জিবি ডিডিআর৩ র‍্যাম।  যদিও এতে ৮ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি থাকছে, এর পাশাপাশি ব্যাবহারকারি এতে ৬৪ জিবি পর্যন্ত ‘এক্সটারনাল মাইক্রো এসডি কার্ড’ সাপোর্ট পাবেন।  এতে গ্রাফিক্স প্রোসেসিং ইউনিট হিসেবে থাকবে  PowerVR Rogue GE8100 জিপিইউ।  সব মিলিয়ে টুকটাক মাল্টি টাক্সিং এবং ২ডি গেমিং এর ক্ষেত্রে এই ফোনে কোন সমস্যা হওয়ার কথা নয়।

বেঞ্চমার্ক

সিকিউরিটি

ফোনের নিরাপত্তা জন্য ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর রয়েছে রিয়ার প্যানেলে। সুইফট আনলকের ক্ষেতে এই ফিচারটি বেশ উপযোগী।সেলফি তোলার ক্ষেত্রে ফিঙ্গার প্রিন্ট স্ক্যানরটি কাজ করে।

ব্যাটারি

পুরো ডিভাইসটি ব্যাকআপ দিতে রয়েছে ৩২০০ এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। এক চার্জে একদিন ভালোভাবেই চলে যাবে আশাকরছি। ডিভাইসটিতে অপটিমাইজ সফটওয়্যার ব্যাবহার করা হয়েছে তাই ব্যাটারি ড্রেইনের কোন ঝামেলা নেই।

পূর্বের প্রিমো এনএফ৩ এর থেকে এনএফ ৪ এ যে সকল ফিচার আপডেট করা হয়েছে তার মধ্যে ডিজাইন, ফোরজি কানেক্টিভিটি, ফুলভিউ ডিসপ্লে, ২.৫ডি কার্ভ গ্লাস, ফিঙ্গার প্রিন্ট স্ক্যানার। দাম অনুযায়ী ডিভাইসটি যথেষ্ট প্রিমিয়াম প্রিমিয়াম ছিলো। এসময়য়ে বাজেট বান্ধব স্মার্টফোন গুলোর মধ্যে প্রিমো এনএফ ৪ আশা করছি এগিয়ে থাকবে।

প্রিমো এনএফ৪ ডিভাইসটি কেনার সাথে সাথে পাওয়া যাবে ৩০ দিনের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি।  তাছাড়াও ফোনের জন্য ১ বছরের, ব্যাটারির ৬ মাস, অ্যাডাপ্টারের ৬ মাস এবং ইউএসবি কেবলের ৬ মাস সার্ভিস ওয়ারেন্টি তো থাকছেই। এছাড়াও কেনার পর ১০১ দিন পর্যন্ত এতে মাইনোরিটি সার্ভিস গ্যারান্টি পাওয়া যাবে।